Hotline: 01531532139

Air Fish | আইর মাছ | Kaptai Leke fish | - Pahar Theke

(0 reviews)
Out of stock

সম্পূর্ণ নিজেদের তত্তাবধনে সংগ্রহ করা কাপ্তাই লেকের অথেনটিক দেশি আইর মাছ। (আস্ত অথবা রেডি টু কুক ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয়।)

কেন কাপ্তাই লেকের আইর মাছ খাবেন?

আইর |air fish| মাছের উপকারীতা: 

প্রতি ১০০ গ্রাম আইড় মাছে আছে-

  • ১৫.৯ গ্রাম আমিষ,
  • ১.৩ গ্রাম চর্বি,
  • ৮৯ কিলো ক্যালরি খাদ্যশক্তি
  • ৩৮০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম
  • ১৮০ মিলিগ্রাম ফসফরাস,
  • ০.৭ মিলিগ্রাম লোহ ও ০.৫ মিলিগ্রাম নিয়াসিন।
  • মানবদেহের হাড় ও পেশী গঠনে শক্তিশালী ভূমিকা রাখে।
  • বাচ্চাদের জন্য এ মাছ ব্রেন ডেভলপমেন্টের কাজ করে।
  • চোখের জোতি বৃদ্ধি করে এবং চুলের গোড়া মজবুত করে তোলে।
  • আইর আমাদের শরীরের প্রানিজো আমিষের ঘাটতি পূরণ করে ও দৈহিক গঠনে সহায়তা করে৷
  • ক্যালসিয়াম হাঁড় ও দাঁতের গঠনে কার্যকর আইড় মাছ!


| বি:দ্র: আমাদের মাছগুলো শতভাগ ফরমালিনমুক্ত। তাই স্টক করা হয়না, অর্ডার কনফার্ম হওয়ার ১-৪ দিনের এবং মাছ ধরার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ডেলিভারি করা হয়। ওজনের তারতম্যের কারণে মূল্য কিছুটা কম-বেশি হতে পারে। ধন্যবাদ! |


Sold by:
Inhouse product
Pahar Theke

Price:
৳800.00 - ৳1,300.00 /kg

Size:
Quantity:
Minimum 1 Item
(0 available)

Total Price:
Share:
কাপ্তাই লেকের আইর মাছের পরিচিতি-
বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গামাটি জেলায় অবস্থিত কাপ্তাই লেক একটি মনোরম প্রাকৃতিক জলাশয়। আইর মাছ (Aorichthys aor) বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় স্বাদুপানির মাছ। এই মাছটি তাদের সুস্বাদু মাংস এবং পুষ্টিগুণের জন্য প্রসিদ্ধ। সাধারণত নদী, লেক এবং জলাশয়ে পাওয়া যায়।

আইর মাছের বৈশিষ্ট্য শারীরিক গঠন:
আইর মাছের দেহ লম্বা এবং কিছুটা চাপা। এদের পিঠের রঙ হালকা ধূসর থেকে নীলচে এবং পেটের অংশ সাদা। পৃষ্ঠে এবং পাখনায় কিছু কালো দাগ থাকে।

আইর মাছ সাধারণত বর্ষাকালে প্রজনন করে। এ সময় তারা পানির গভীরতর স্থানে গিয়ে ডিম পাড়ে। ডিম থেকে লার্ভা এবং পরবর্তী সময়ে পূর্ণাঙ্গ মাছ হয়ে ওঠে। আইর মাছ মূলত সর্বভুক। তারা ছোট মাছ, পোকামাকড় এবং জলজ উদ্ভিদ খায়।

কাপ্তাই লেকে আইর মাছের বাসস্থান-
কাপ্তাই লেকের গভীর জল এবং পরিষ্কার পানি আইর মাছের জন্য আদর্শ বাসস্থান। এদের প্রজননক্ষেত্রও লেকের গভীর অংশে অবস্থিত। বর্ষাকালে লেকের পানি বেড়ে গেলে এবং নতুন নতুন জলাশয় সৃষ্টি হলে আইর মাছের প্রজননক্ষেত্রও পরিবর্তিত হয়।



কেন কাপ্তাইয়ের আইর মাছ শ্রেষ্ঠ?
কাপ্তাই লেকের আইর মাছকে শ্রেষ্ঠ বলার কারণগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো এর অসাধারণ স্বাদ ও পুষ্টিগুণ। তবে এই মাছের শ্রেষ্ঠত্বের আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক রয়েছে যা এখানে আলোচনা করা হলো:

স্বাদ ও পুষ্টিগুণ-
কাপ্তাই লেকের আইর মাছ তার উৎকৃষ্ট স্বাদ এবং পুষ্টিগুণের জন্য বিশেষভাবে পরিচিত। এই মাছের মাংস নরম ও সাদা যা রান্নায় খুবই সুস্বাদু হয়। এছাড়াও, এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, এবং ভিটামিন ডি রয়েছে যা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

প্রাকৃতিক পরিবেশে বাসস্থান
কাপ্তাই লেক একটি প্রাকৃতিক এবং দূষণমুক্ত পরিবেশ, যা আইর মাছের বৃদ্ধির জন্য আদর্শ। লেকের গভীর এবং পরিষ্কার জল মাছের জন্য একটি নিরাপদ এবং স্বাস্থ্যকর আবাসস্থল প্রদান করে। এর ফলে, এই মাছগুলি রোগমুক্ত এবং স্বাস্থ্যকর থাকে।

জীববৈচিত্র্য ও প্রাকৃতিক সম্পদ
কাপ্তাই লেকের জীববৈচিত্র্য অত্যন্ত সমৃদ্ধ। এখানে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ পাওয়া যায়, যার মধ্যে আইর মাছ একটি প্রধান প্রজাতি। এই লেকের মাছগুলি প্রাকৃতিক খাদ্য গ্রহণ করে, যা তাদের স্বাদ এবং পুষ্টিগুণ বাড়ায়।

আইর মাছের রান্নার ক্ষেত্রে অনেক বৈচিত্র্য রয়েছে। এটি বিভিন্ন ধরণের রান্নায় ব্যবহার করা যায় যেমন মাছের ঝোল, ভাজা, এবং পাতাপোড়া। এই কারণে এটি বাঙালিদের খাদ্যাভ্যাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে আছে। কাপ্তাই লেকের আইর মাছের এই সব গুণাবলীই একে শ্রেষ্ঠ করে তোলে। এটি শুধু স্বাদ ও পুষ্টিগুণের জন্য নয়, এর পরিবেশগত, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক গুরুত্বের জন্যও অতুলনীয়।



কাপ্তাইয়ের আইর মাছের উপকারীতা:
কাপ্তাই লেকের আইর মাছ, যা ইংরেজিতে "Air Fish" নামে পরিচিত, পুষ্টি এবং স্বাদ উভয়ের দিক থেকেই অত্যন্ত উপকারী। নিচে এই মাছের প্রধান উপকারীতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:

পুষ্টিগুণে ভরপুর-
আইর মাছ প্রোটিনের একটি উৎকৃষ্ট উৎস। এতে প্রায় ১৮-২০% প্রোটিন থাকে, যা দেহের পেশী গঠনে সহায়ক। এছাড়াও, এই মাছ ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ, যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে এবং মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।

স্বাস্থ্যকর ফ্যাটি অ্যাসিড-
আইর মাছের ফ্যাটি অ্যাসিড শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এই ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়ক এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। এছাড়াও, এটি শরীরে খারাপ কোলেস্টেরল (LDL) কমাতে সাহায্য করে এবং ভালো কোলেস্টেরল (HDL) বাড়ায়।

ভিটামিন ও মিনারেল-
আইর মাছ ভিটামিন ডি, ভিটামিন বি১২, এবং সেলেনিয়ামের একটি ভালো উৎস। ভিটামিন ডি হাড়ের স্বাস্থ্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, ভিটামিন বি১২ রক্তের লোহিত কণিকার উৎপাদন এবং স্নায়ুতন্ত্রের কার্যক্রমে সহায়ক। সেলেনিয়াম একটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

চোখের স্বাস্থ্যে উপকারী-
আইর মাছের ভিটামিন এ এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিয়মিত এই মাছ খেলে দৃষ্টিশক্তি উন্নত হয় এবং চোখের বিভিন্ন সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

বাড়ন্ত শিশুদের জন্য উপকারী-
বাড়ন্ত শিশুদের জন্য আইর মাছ খুবই উপকারী। এতে উপস্থিত প্রোটিন, ভিটামিন, এবং মিনারেল শিশুদের শারীরিক এবং মানসিক বিকাশে সহায়ক। এটি শিশুরা সহজেই হজম করতে পারে এবং তাদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়-
আইর মাছের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এটি শরীরের কোষগুলোকে ফ্রি র‍্যাডিক্যালের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করে এবং বিভিন্ন সংক্রমণ ও রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে।

ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়ক-
আইর মাছের ক্যালোরি কম এবং প্রোটিন বেশি হওয়ায় এটি ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়ক। এটি খেলে দীর্ঘ সময় পেট ভরা থাকে এবং অতিরিক্ত খাওয়ার প্রবণতা কমায়।

হাড়ের স্বাস্থ্য রক্ষায়-
ভিটামিন ডি এবং ক্যালসিয়ামের উপস্থিতি আইর মাছকে হাড়ের জন্য অত্যন্ত উপকারী করে তোলে। এটি হাড়ের ঘনত্ব বাড়ায় এবং অস্টিওপরোসিসের ঝুঁকি কমায়।

রক্ত শুদ্ধিকরণে সহায়ক-
আইর মাছের নিয়মিত সেবন রক্ত শুদ্ধিকরণে সহায়ক। এতে থাকা পুষ্টি উপাদানগুলো রক্তের বিভিন্ন বিষাক্ত পদার্থ দূর করে এবং রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া উন্নত করে।

হৃদযন্ত্রের সুস্থতা-
ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হৃদযন্ত্রের সুস্থতা রক্ষায় সহায়ক। এটি হৃদপিণ্ডের বিভিন্ন সমস্যার ঝুঁকি কমায় এবং হৃদরোগ প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।

সুতরাং, কাপ্তাই লেকের আইর মাছ শুধু সুস্বাদু নয়, এটি আমাদের শরীরের বিভিন্ন দিক থেকে উপকারী এবং সুস্থ জীবনযাপনে সহায়ক। নিয়মিত এই মাছ খাওয়ার মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারেন।
There have been no reviews for this product yet.
Subscribe Us